NTRCA শিক্ষক নিবন্ধন ও পুলিশ ভেরিফিকেশন

0
2134

নিবন্ধন পুলিশ ভেরিফিকেইশন ! বিস্তারিত জেনে নিন। NTRCA police verification process 2021. School & College teacher police verification tips.

সুপ্রিয় সহকর্মীবৃন্দ,
আস সালামু আলাইকুম। আশা করি ভাল আছেন। যারা প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত হয়েছেন তাদের প্রতি রইল আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।
এনটিআরসিএর নিয়োগে পুলিশ ভেরিফিকেইশন হবে জেনে অনেকেই খুব চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। এনটিআরসিএর নিয়োগে এবারই প্রথম পুলিশ ভেরিফিকেইশন হচ্ছে। এটা নিয়ে চিন্তিত হবার কিছু নেই। পুলিশ ভেরিফিকেইশনে কী কী বিষয় থাকতে পারে তার একটি ধারণা নিম্নে দেওয়ার চেষ্টা করব।

১। ব্যক্তিগত তথ্য জানতে চাওয়া হবে। তাই আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র, জন্ম নিবন্ধন সনদ, নাগরিকত্ব সনদ সংগ্রহে রাখুন।
শিক্ষা জীবনের সকল সনদ
সংগ্রহে রাখুন।

২। পারিবারিক পরিচয় জানতে চাওয়া হতে পারে।
৩। রাজনৈতিক পরিচয় জানতে চাওয়া হতে পারে।

প্রাথমিক সুপারিশ যে কারনে বাতিল হতে পারে:

১। রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকান্ডে জড়িত কিনা: আপনি যদি রাষ্ট্রবিরোধী কাজে জড়িত থাকেন তবে আপনার প্রাথমিক সুপারিশ বাতিল হতে পারে।
৩। সাজাপ্রাপ্ত হলে
৪। ভুয়া ঠিকানা ব্যবহার করলে
৫। স্বাধীনতা বিরোধী হলে
৬। সরকারের বিরুদ্ধে সামাজিক মাধ্যমে অপপ্রচার চালালে। তাই এগুলো থেকে বিরত থাকুন।
৭। কোনো সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে সামাজিক মাধ্যমে উসকানিমূলক পোস্ট করলে।

বি: দ্র: পুলিশ ভেরিফিকেইশন শেষ করে চুড়ান্ত সুপারিশ করতে আরও দু তিন মাস সময় লাগতে পারে।

মোঃ মশিউর রহমান
সহকারী শিক্ষক (ইংরেজি)
নওপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়, রাজশাহী

শিক্ষক নিবন্ধন ও পুলিশ ভেরিফিকেশন:

যারা শিক্ষক/প্রভাষক হিসেবে চূড়ান্ত ভাবে মনোনিত হয়েছেন তাদের আবারও জানায় আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। আজই শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে যে এবার শিক্ষক হিসেবে সুপারিশপ্রাপ্তদের পুলিশ ভেরিফিকেশন হওয়ার পর কলেজ/স্কুল/ মাদ্রাসায় যোগদান করবেন। তাই ইতিমধ্যে অনেকের কপালে চিন্তার ভাজ পরেছে এবং একই সাথে ভাবছে পুলিশ ভেরিফিকেশনে কি হয় ও আমি কি ভেরিফিকেশনে বাদ যাবো?? তাদের চিন্তা মুক্তি ও পুলিশ ভেরিফিকেশনে আপনাদের কি করণীয় হতে পারে সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

১। পুলিশ ভেরিফিকেশন করে সাধারণত পুলিশের DSB শাখা। এখানে সাধারণত সকল ধরনের মূল কাগজপত্র ভেরিফাই করেন এবং সকল ধরনের কাগজ এক সেট সত্যায়িত কপি তারা জমা নেন। বলে রাখা দরকার, কাগজ বলতে…
ক) সকল শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ ও মার্কসিট।
খ) জাতীয় পরিচয় পত্র ও নাগরিক সনদ।
গ) পাসপোর্ট সাইজের ছবি
ঘ) শিক্ষক নিবন্ধন সনদ।
ঙ) বাবা ও মায়ের জাতীয় পরিচয় পত্র।

২। অনেক ক্ষেত্রে পুলিশ আপনার স্থায়ী ঠিকানা যাচাই করার জন্য বাড়ির দলিলপত্র ও বিদুৎ বিলের কাগজ দেখতে চাইতে পারে।

৩। আপনার এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি বিশেষ করে চেয়ারম্যান ও মেম্বারের কাছে আপনার সম্পর্কে তথ্য নিতে পারে তাই তাদের আপনি আগে থেকেই আপনার চাকরির সম্পর্কে বলে রাখলে ভালো হয়।

৪। আপনি বাড়ি থেকে দূরে বসবাস করলে বাড়ির লোকদের আপনি আগে থেকেই বলে রাখেন এবং আপনার একসেট সত্যায়িত কাগজপত্র বাড়িতেই রেখে দেন।

৫। পুলিশ ভেরিফিকেশনে সাধারণত তারাই বাদ পরে যাদের থানাই মামলা আছে, বিতর্কিত রাজনৈতিক সংগঠনের সাথে জড়িত, স্বাধীনতা বিরোধী পরিবারের সদস্য ও নারী কেলেংকারী ঘটিত কোনো সমস্যা আছে। তাছাড়া সাধারণত কেউ বাদ পরে না। তাই আপনি এখন থেকেই সচেতন হোন তবে আগ বাড়িয়ে থানায় যাওয়ার প্রয়োজন নেই কারণ পুলিশ আপনাকে দূর্বল ভাববে ও ফাইদা নেওয়ার চেষ্টা করবে। কিন্তু সত্যি কথা বলতে এখন পুলিশের মধ্যে অনেক পরিবর্তন এসেছে এবং তারা জনগণের সেবাই সর্বদা নিজের জীবন রাখতেও দ্বিধাবোধ করেন না।

৬। অনেক ক্ষেত্রে ভেরিফিকেশনের পর অনেকে খুশি হয়ে মিষ্টি খেতে চাই সেটা আপনি আপনার মতোই করে হ্যান্ডেল করবেন তবে আগ বাড়িয়ে কিছুই করতে যাবেন না।

[এছাড়াও একই প্রক্রিয়ায় স্থানীয় প্রশাসন অর্থাৎ আপনার উপজেলার ম্যাজিস্ট্রেট মহোদয় ভেরিফিকেশন করে থাকেন]

আশা করি ভেরিফিকেশনে আপনাদের কোনো সমস্যা হবে না, আপনারা এখন থেকেই মানসিকভাবে প্রস্তুতি গ্রহন করেন কারণ যেকোনো মূহুর্তে ভেরিফিকেশন শুরু হতে পারে। আর ভেরিফিকেশনে বাদ পরলেও হতাশ হওয়ার কিছু নাই কারণ পুনরায় আবার ভেরিফিকেশনের সুযোগ থাকে। কারণ পুলিশ ভেরিফিকেশনে নেগেটিভ তথ্য দিলে পুনরায় DGFI থেকে ভেরিফিকেশন হয়। আপনাদের জন্য শুভকামনা।

অন্তর সরকার

সাবেক
প্রভাষক ( দর্শন বিভাগ)
মহিলা কলেজ, সদরপুর, ফরিদপুর

বর্তমান
প্রভাষক ( দর্শন বিভাগ)
শ্যামনগর সরকারি মহসিন ডিগ্রি কলেজ, সাতক্ষীরা