কচুরিপানা বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান (আপডেট টপিক)

বাংলাদেশের বর্তমান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান গত ১৭ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এক পদক প্রদান অনুষ্ঠানে বলেন, “কচুরিপানা গরু খেতে পারলে আমরা কেন পারবো না?” তাঁর এহেন বক্তব্যে পুরো দেশ জুড়ে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা আর সোশ্যাল মিডিয়ায় তৈরি হয়েছে নানা মিম এবং ট্রল জাতীয় পোস্ট!

কচুরিপানা বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান

আসুন জেনে নেই দেশের এই সদ্য বিখ্যাত কচুরিপানা থেকে কী কী সাধারণ জ্ঞান থাকতে পারে!

০১. কচুরিপানা কী ধরনের উদ্ভিদ?

উত্তরঃ মুক্তভাবে ভাসমান বহুবর্ষজীবী জলজ উদ্ভিদ।

০২. কচুরিপানার আদিনিবাস কোথায়?

উত্তরঃ দক্ষিণ আমেরিকা বিশেষ করে ব্রাজিল।

০৩. কচুরিপানার ফুলের বর্ণ কেমন?

উত্তরঃ বেগুণীর সাথে সাদার মিশ্রণ।

০৪. সবচেয়ে পরিচিত কচুরিপানার বৈজ্ঞানিক নাম কী?

উত্তরঃ Eichhornia crassipes.

০৫. কচুরিপানাকে কোন দেশে খাদ্য হিসেবে ব্যবহার করা হয়?

উত্তরঃ কম্বোডিয়া।

মাছের সাথে কচুরিপানার বিশেষ এক রান্না সেখানে তুমুল জনপ্রিয়।

০৬. বিশ্বের নানা দেশে এটি প্রধানত কী হিসেবে ব্যবহৃত হয়?

উত্তরঃ বায়োফুয়েল।

তবে অনেক দেশে কাগজের মণ্ড তৈরিতেও কাজে লাগে।

০৭. একটি মানসিক দক্ষতা – “কোনও একটি পুকুরের কচুরিপানা প্রতিদিন দ্বিগুণ হারে বংশবৃদ্ধি করে, তাহলে ১৬তম দিনে ঐ পুকুরে কচুরিপানার পরিমাণ অর্ধেক হলে কত তম দিনে সম্পূর্ণ পুকুর ভরে যাবে?”

এই অংকের উত্তরটি কমেন্ট বক্সে দিতে পারেন।

সবাইকে ধন্যবাদ

সংগৃহীত পোস্ট

Leave a Comment