Home চাকরির প্রস্তুতি দুদক পরীক্ষার ধরণ, কোন বই কিভাবে পড়বেন - টপ সাজেশন

দুদক পরীক্ষার ধরণ, কোন বই কিভাবে পড়বেন – টপ সাজেশন

দুদকের ব্যাপক সার্কুলার – পরীক্ষার ধরণ – কোন বই – কিভাবে পড়বেন – টপ সাজেশন। আবেদনের তারিখঃ ২০-১১-২০১৯ থেকে ১৯-১২-২০১৯ পর্যন্ত। বিঃদ্রঃ একজন প্রার্থী শুধুমাত্র একটি পোস্টে আবেদন করতে পারবেন। সহকারী পরিচালক (৯ম গ্রেড ) – ১৩২ টি পদ, উপ সহকারী পরিচালক (১০ম গ্রেড ) – ১৪৭ টি পদ, কোর্ট পরিদর্শক (১০ম গ্রেড ) – ৯ টি পদ ।

দুদক নিয়োগ পরীক্ষার ধরণঃ

১. বাছাই পরীক্ষা – ১০০ মার্ক ।
২. লিখিত পরীক্ষা (ব্যাবহারিক ও এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত ) – ৩০০ মার্ক (পাশ মার্ক ৫০% ও প্রতি বিষয়ে পৃথক ভাবে পাশ করতে হবে )।
৩. মৌখিক পরীক্ষা – ৫০ মার্ক ।

পরীক্ষার বিষয় সমূহঃ

১. বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলীঃ – রচনামূলক – (৩০+৩০ ) = ৬০ মার্ক + বাংলা , ইংরেজি সহ – নৈর্ব্যত্তিক – (২০+২০ )= ৪০ মার্ক = মোটঃ ১০০ মার্ক।
২. চলতি ঘটনাবলী ও সাধারণ জ্ঞানঃ রচনামূলক – ৫ ০ মার্ক + নৈর্ব্যত্তিক – ৫০ মার্ক = মোটঃ ১০০ মার্ক ।
৩. কম্পিউটারঃ – লিখিত – ৫০ মার্ক + ব্যাবহারিক ৫০ মার্ক = মোটঃ ১০০ মার্ক । ফেসবুকে চাকরির প্রস্তুুতি ও টিপস পেতে যুক্ত হন: দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) নিয়োগ প্রস্তুতি গ্রুপে ।

কোন বই ও কিভাবে পড়বেনঃ

এখানে উল্লেখ্য বাছাই পরীক্ষার বিষয় সম্পর্কে সার্কুলারে তেমন কিছু বলা নাই এবং লিখিত পরীক্ষার বিষয় অনুসারে বলতে গেলে যে কইয়েকটি বিষয় আসে তা হলঃ

  • ১. বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী
  • ২. চলতি ঘটনাবলী ও সাধারণ জ্ঞান
  • ৩.কম্পিউটার
  • ৪. ইংরেজি
  • ৫. বাংলাএখন বিভিন্ন প্রিলি বা বাছাই পরীক্ষা যদি আপনি এনালাইসিস করে দেখেন তাহলে উপরের ৫ টি বিষয়ের বাইরে গনিত ছাড়া আর কিছু থাকে না । তাই উপরের ৫ টি ভালো ভাবে পড়ুন এবং আপনি বেক্তিগত ভাবে যদি মনে করেন গণিত পড়া দরকার তাহলেও পড়তে পারেন ।
    ১. বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী – আজকের বিশ্ব অথবা জর্জ সিরিজের mp3 পড়তে পারেন । সিলেবাস অনেক বড় তাই এখন থেকে বুঝে ভালো করে পড়তে থাকুন।
    ২. চলতি ঘটনাবলী ও সাধারণ জ্ঞান – রিসেন্ট ভিউ বা আলাস’স সাম্প্রতিক আওয়ার বা MENs বা কারেন্ট এফেয়ার্স বই গুলো দেখতে পারেন । সাম্প্রতিক তথ্যের উপর গুরুত্ব দিন ও এখন থেকে পড়তে থাকুন তাহলে আপনার ৪১ তম বিসিএস ও সহজ হয়ে যাবে।
    ৩. #কম্পিউটার – ” Self Suggestion কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি” বইটি দেখতে পারেন ,৪০ তম বিসিএস এ সর্বোচ্চ কমন পাওয়া বই এটি এবং নিবন্ধন পরীক্ষায় শতভাগ অপশন সহ কমন পড়েছে শুধুমাত্র এই বই থেকে । শর্টটেকনিক দেয়া আছে , স্বল্প সময়ে প্রস্তুতি নেয়া যায়। এই বইয়ের প্রতি চ্যাপ্টারের শেষের প্রশ্নগুলি ও অটো সাজেশন অংশটা দেখে যাবেন যে কইটা ICT থেকে প্রশ্ন আসবে এখান থেকে কমন পাওয়ার সম্ভবনা আছে যা আপনাকে এগিয়ে রাখবে । দুদকের লিখিত পরীক্ষার জন্য বলা (মাইক্রোসফট এক্সেল ,ওয়ার্ড, পাওয়ার পয়েন্ট ও ইন্টারনেট ব্রাওজিং ) অংশটুকু এই বই থেকে ভালো করে পড়ে ফেলুন । আর কম্পিউটারের উপর ব্যাবহারিক পরীক্ষা এর ((মাইক্রোসফট এক্সেল ,ওয়ার্ড, পাওয়ার পয়েন্ট ও ইন্টারনেট ব্রাওজিং ) এর উপরে ৫০ মার্কের হবে । তাই গুরুত্ব সহ আগে পড়ে ফেলুন ।
    ৪. ইংরেজি – বিসিএস সহ বিভিন্ন পরীক্ষায় আসা বিগত সালের প্রশ্ন গুলো ভালো করে দেখে যান , ইংরেজি গ্রামারের জন্য Competitive Exams অথবা MASTER থেকে পড়তে পারেন ।
    ৫. বাংলা – বাংলার জন্য জর্জ এর MP3 ভালো করে পড়ুন , সহায়ক হিসেবে অগ্রদূত এর বাংলাটা দেখতে পারেন, বিগত সালের প্রশ্ন গুলো ভালো করে দেখে যান।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) নিয়োগ প্রস্তুতি কিভাবে পড়বেনঃ

প্রতিটি সাবজেক্টকে টপ প্রায়রিটি দিয়ে প্রতিদিন আপনার সুযোগ ,সময় এবং সাধ্যমত একটা প্লান করুন , পড়তে থাকুন । শুধুমাত্র দুদকের জন্য কোন বই বের হলে ভ্রান্ত অযথা সময় নষ্ট করবেন না । বেসিক ক্লিয়ার করে পড়ুন ,জয় আপনারই হবে ইনশা আল্লাহ্‌ । বেশি বই পড়ে মনে না রাখার চেয়ে , ভালো মানের বই অল্প করে বার বার বেসিক ক্লিয়ার করে পড়লে মেমোরাইজ জোন তৈরি হবে, মনে থাকবে বেশি। এই বইগুলো পড়লে আপনার বিসিএস ছাড়াও অন্যান্য চাকরির জন্য সহজ হয়ে যাবে,যদি টার্গেট থাকে আপনার বাংলাদেশ ব্যাংক, ৪১ তম বিসিএস বা সরকারি চাকরি তাহলে আজকে থেকেই শুরু করুন , সাফল্য আপনার কাছে ধরা দিতে বাধ্য।

সাজেশনটি একান্ত আমার বেক্তিগত , ভালো লাগলে ফলো করতে পারেন। সবার প্রস্তুতি ভালো হউক সেই কামনায় , আপনার কোন মতামত থাকলে জানাবেন । ভালো লাগলে লেখাটি শেয়ার / কপি / পেস্ট করতে পারেন কোন রেস্ট্রিকশন নাই। শুভ কামনা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

More Job Circular

More Job Circular